Nandan News
এই অতি বৃষ্টিতে শেষ ভরসা তিনি ছিলেন

এই অতি বৃষ্টিতে শেষ ভরসা তিনি ছিলেন


জুনাইদ কবির,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:উত্তর জনপথের সিমান্তবর্তী জেলা ঠাকুরগাঁও।ঠাকুরগাঁও জেলাকে কৃষি প্রধান এলাকা হিসেবে গণ্য করা হয়ে থাকে কারণ এ এলাকার বেশিরভাগ মানুষ কৃষি নির্ভরশীল।আর এ কৃষির
সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে এ এলাকার হাজারো ক্ষুদ্র নৃতাত্বিক জনোগোষ্ঠী(আদিবাসী)।ঠাকুরগাঁও জেলার তথ্য অনুসারে এ জেলায় মোট ১৬ হাজার ক্ষুদ্র নৃতাত্বিক জনোগোষ্ঠী(আদিবাসী) এর বসবাস। ক্ষুদ্র
নৃতাত্বিক জনোগোষ্ঠী(আদিবাসী) এর বেশিরভাগ মানুষি জরিত রয়েছেন কৃষি পেষার সাথে। ঠাকুরগাঁওয়ে টানা ১০ দিন অতি বৃষ্টির ফলে এ এলাকার ক্ষুদ্র নৃতাত্বিক জনোগোষ্ঠী,আদিবাসীরা চরম বিপাকে পরে যায়। শতাধিক ক্ষুদ্র নৃতাত্বিক জনোগোষ্ঠী ,আদিবাসীর ঘর খাবার শুন্য হয়ে যায় চরম সংকট ময় মুহুর্ত পার করতে হয় তাদের। আর কিছুদিন গেলে তাদের ধর্মীয় মহা উৎসব সারোদীয় দূর্গাপূজা আর এ সময় হঠাৎ এ সংকট চরম বিপাকে ছিলেন তারা। সোমবার(৩০ সেপ্টেম্বার) শতাধিক ক্ষুদ্র নৃতাত্বিক জনোগোষ্ঠী(আদিবাসী) হঠাৎ ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে হাজির।জেলা প্রশাসকের সাথে দেখা করতে চাইলেন তারা কিন্তু দূর্ভাগ্যের
বিষয় ভিতর থেকে খবর এলো জেলা প্রশাসক নেই তিনি কন্যা দিবসের অনুষ্ঠানে আছেন ,আসতে কিছু সময় দেরি হবে। জেলা প্রশাসকের অফিস সহকারী আবেদন রেখে যেতে বলে অথবা বুধবার 
গনশুনানির দিনে তাদের আসতে বলেন। তারা কনো উপায় অন্ত না পেয়ে সাহায্য প্রাপ্তির আশায় ডিসি অফিসের বারান্দায় ডিসির অপেক্ষার প্রহর গুনতে শুরু করলেন।অপেক্ষা আশা হতাশায় প্রায় ২ ঘন্টা সময় পেরিয়ে গেল জেলা প্রশাসক অফিসে ফিরলেন ১ টা ৩০মিনিটে।

জেলা প্রশাসক তাদের সমস্যার কথা শুনলেন এবং তা সমাধানের জন্য একটু চিন্তিত হলেন হঠাৎ এতো মানুষ একসাথে কি করা যায় একটু ভাববার বিষয়। জেলা প্রশাসক দেখেলেন অতি বৃষ্টি একটি প্রাকৃতিক দূর্যোগ তারা
তো সাহায্য পেতেই পারে।তিনি ত্রান ভান্ডার হতে ১২০ জন ক্ষুদ্র নৃতাত্বিক জনোগোষ্ঠী(আদিবাসীর ) প্রত্যেককে সরকার প্রদত্ত এক কার্টুন করে শুকনা খাবার প্রদান করেন।প্রতি কাটুৃনে রয়েছে ১০ কেজি চাল,১ কেজি মসুর ডাল,১ কেজি চিনি,১ কেজি লবন,১ লিটার সোয়াবিন তেল,২ কেজি চিড়া,৫০০ গ্রাম নুডুলস্ধসঢ়;।পন্য সামগ্রি পেয়ে তারা অনেকটাই আনন্দে আন্তহারা যেন আঁধার ঘরে হঠাৎ প্রদিপের দেখা মিলে গেলো।
এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড: কে .এম .কামরুজ্জামান সেলিমের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান এটা আমার জন্য বড় পাওয়া যে তারা আমার অফিস পর্যন্ত এসেছেন কারন তারা আমার জেলার নাগরিক তারা আসার আগে আমার জেলার সকল নাগরিকের খবর নেয়া আমার কর্তব্য। তাদের সহযোগিতা করতে পেরে শুধু আমি না আমার জেলা প্রশাসন পরিবার অত্যান্ত আনন্দিত ও গর্বিত।

RoseBrand

Related News

Nandan News

রিফাত হত্যা : তদন্তকারী কর্মকর্তার জবানবন্দি চলছে

বরগুনার বহুল আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার দ্বিতীয় দিনেও শেষ হয়নি তদন্তকারী কর্মকর্তার জবানবন্দি। এদিনও আসামিপক্ষের আইনজীবীরা তদন্তকারী কর্মকর্তাকে জেরা করতে প...

চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হতে আগ্রহী বিএনপির ৬ জন

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে বিএনপি থেকে মেয়র প্রার্থী হতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ৬ জন। এরই মধ্যে তারা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন এবং তিনজন বুধবার ফরম জম...

সমুদ্রের তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

কক্সবাজার সমুদ্রের তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ না করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘আমরা সমুদ্রের তীর...

LIVE TV