Nandan News
করোনায় একজনের মৃত্যু

করোনায় একজনের মৃত্যু

 

করোনার সংক্রমণ নিয়ে বাংলাদেশে নতুন করে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা ছড়িয়ে পড়েছে গতকাল একজনের মৃত্যুর পর। দেশে এটিই প্রথম প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে কারও মৃত্যুর ঘটনা। শুধু তাই নয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত আরও চারজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) কিছু দিন আগেই করোনা থেকে সৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগকে মহামারী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। এ রোগে আক্রান্ত হয়ে দেশে একজনের মৃত্যুর পর বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ মুহূর্ত থেকেই সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। দেশবাসী যেন প্রয়োজনীয় নির্দেশনা মেনে চলেন, সে বিষয়ে কঠোরতম অবস্থান নিতে হবে সরকারকে। সরকার ইতোমধ্যে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করলেও গতকালের প্রাণহানির পর নতুন করে আরও কিছু সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং তা কার্যকরে কঠোর হয়েছে।

তিন মাসে বিদেশ ফেরত সাড়ে ৬ লাখ : গত ৩ মাসে বিদেশিসহ ৬ লাখ ৩০ হাজার বাংলাদেশি বাংলাদেশে এসেছেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
বৈশ্বিক পরিস্থিতি : জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির গবেষকদের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, বিশ্বের ১৬৬টি দেশ ও অঞ্চলের ২ লাখেরও বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর মৃতের সংখ্যা আট হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

সরকারসংশ্লিষ্টরা বলছেন, তারা মোটেও অবহেলা করছেন না। সর্বাত্মক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ইউরোপসহ অনেক দেশের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ বন্ধ রাখা হয়েছে। বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারেনটিন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সভা-সমাবেশ, ওয়াজ মাহফিলসহ সব রকম গণজমায়েত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন আরও ৪ জনসহ করোনায় আক্রান্ত মোট ১৪ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে প্রথম দফায় আক্রান্ত তিনজন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন; হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১০ জন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চারজন চিকিৎসককেও হোম কোয়ারেনটিনে রাখা হয়েছে।
এদিকে বিশ্বব্যাপী মহামারীতে পরিণত হওয়া নভেল করোনো ভাইরাসকে ‘সংক্রামক রোগ’ হিসেবে ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করতে সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একটি রিট আবেদনের শুনানি করে বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের বেঞ্চ গতকাল এ আদেশ দেন। আদালত বলেছেন, সম্ভব হলে বুধবার (গতকাল) রাতের মধ্যেই এ গেজেট জারি করতে।
গতকাল বুধবার বিকালে করোনা ভাইরাস নিয়ে নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানিয়েছেন, যিনি মারা গেছেন তার বয়স ৭০-এর বেশি। তিনি বিদেশে যাননি। বিদেশ থেকে আসা একজনের দ্বারা সংক্রমিত হয়েছেন। তার ডায়াবেটিক, উচ্চ রক্তচাপ, কিডনি ও ফুসফুসে সমস্যা ছিল। ভুগছিলেন হৃদরোগেও। এ ছাড়া তার হৃদযন্ত্রে একবার স্টেন্টিং হয়েছিল।
অধ্যাপক মীরজাদী ফ্লোরা বলেন, নতুন করে (গত ২৪ ঘণ্টায়) ৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে একজন নারী এবং ৩ জন পুরুষ। আক্রান্তদের একজন আগে যারা আক্রান্ত ছিলেন তাদের পরিবারের সদস্য। বাকি তিনজনের দুজন ইতালি ও একজন কুয়েত থেকে এসেছেন। বর্তমানে ১৬ জন আইসোলেশনে আছেন। আর ৪২ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটিনে আছেন।
গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে জানিয়ে মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, এ পর্যন্ত মোট ৩৪১ জনের নমুনা তারা সংগ্রহ করেছেন।

বিশ্বজুড়ে নভেল করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর গত ৮ মার্চ প্রথম বাংলাদেশে তিনজন এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর জানায় আইইডিসিআর। তাদের মধ্যে দুজন ইতালি থেকে এসেছিলেন। তৃতীয়জন ইতালি ফেরত একজনের পরিবারের সদস্য। এর পর আক্রান্ত তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তির পাশাপাশি কোয়ারেনটিনে রাখা হয় আরও চারজনকে।
এর পর গত ১৪ মার্চ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক আরও দুজন আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত করার খবর জানান। তারা ইতালি ও জার্মানি ফেরত। এ ছাড়া তাদের একজনের মাধ্যমেই পরিবারের এক নারী ও দুই শিশু আক্রান্ত হয়েছে বলে গত সোমবার জানায় আইডিসিআর।
পর দিন মঙ্গলবার আরও দুজন শনাক্ত করার কথা জানিয়ে বলা হয়, তাদের একজন হাসপাতালে কোয়ারেনটিনে ছিলেন, অন্যজন বিদেশ ফেরত একজনের সংস্পর্শে আসায় আক্রান্ত হন।
দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়ার পরিপ্রেক্ষিতে বিদেশ ফেরতদের আরও দায়িত্বশীল আচরণ করার আহ্বান জানিয়ে মীরজাদী ফ্লোরা বলেন, বিদেশ ফেরতরা কেউ তথ্য গোপন করবেন না। ভ্রমণের তথ্য গোপন করলে খুঁজে বের করা কঠিন হবে। দেশের ভালো বুঝতে হবে সবার। তাই নিজ দায়িত্বে তথ্য জানানোর পাশাপাশি নিজেরা হোম কোয়ারেনটিনে যাবেন। বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতিতে নাগরিকদের আরও সচেতন থাকতে হবে।
আইইডিসিআর পরিচালক আরও বলেন, বিদেশ ফেরতদের ক্ষেত্রে আমরা বিভিন্ন ঠিকানা সংগ্রহ করে হোম কোয়ারেনটিনের ব্যবস্থা করছি। কিন্তু সেক্ষেত্রেও সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে। কেননা পাসপোর্টের ঠিকানায় অনেকেই বসবাস করেন না। তিনি বলেন, কোনো কেইস যদি ডিটেক্ট হয়, তার কন্টাক্ট ট্রেসিং করা, তার সম্পর্কে তথ্য জানা এবং এই কন্টাক্টকে ট্র্যাকিং করা শুধু আইইডিসিআরের দায়িত্ব। এ জন্য আইইডিসিআরের প্রশিক্ষিত লোকবল আছে।

এ বিষয়ে অধ্যাপক ডা. খান আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমাদের হাসপাতালের চারজন চিকিৎসক কোয়ারেনটিনে আছেন। তারা ভালো আছেন। এর মধ্যে দুজনের পরীক্ষা হয়েছে। করোনা ভাইরাস পাওয়া যায়নি। আর দুজনের পরীক্ষা বাকি আছে। তিনি বলেন, আমাদের হাসপাতালের আউটডোরে ও ইনডোরে চিকিৎসা নিতে আসা চিকিৎসা নেওয়া লোকজনের স্যাম্পল আমরা আইইডিসিআরে পাঠাই। সেখানে ৪ জনের করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ পাওয়া গেছে। আক্রান্ত সবাই বিদেশ ফেরত হলেও এসব তথ্য গোপন করেছিলেন। রোগীরা সুস্থ হয়ে বাড়ি চলে যাওয়ার পর আইইডিসিআর থেকে বিষয়টি আমাদের জানানো হয়। এটি আগে জানালে চিকিৎসকরা সতর্কতার সঙ্গে কাজ করতে পারতেন। এ ঘটনা জানাজানির পর হাসপাতালে ভীতি সঞ্চারিত হয়। আমরা হাসপাতাল পরিচালক ও চিকিৎসকদের সঙ্গে বৈঠক করে তাদের আশ্বস্ত করেছি। বৈঠকে চিকিৎসক ও শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ নিরাপত্তা জোরদারের বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এন/এসএমএ

RoseBrand

Related News

Nandan News

মোবাইল অপারেটরগুলোকে ফ্রি কল-ইন্টারনেট সেবা দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ব্যারিস্টার সুমন

করোনাভাইরাসের এ দুর্যোগকালীন সময়ে অন্তত ১৫-২০ দিনের জন্য ফ্রিতে ফোন কল ও ইন্টারনেট দিতে দেশের মোবাইল অপারেটরগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী...

করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে এমন এলাকা পুরোপুরি লকডাউনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

দেশের যেসব এলাকায় করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে সেইসব এলাকা পুরোপুরি লকডাউনের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ সোমবার মন্ত্রীসভার বৈঠকে এই নির্দেশ দেন প্র...

ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা বাংলাবান্ধা দিয়ে ফিরবেন

ভারতে আটকে পড়া কয়েকজন বাংলাদেশি নাগরিক পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে ফিরবেন। এতে আতংকে পড়েছেন তেঁতুলিয়ার মানুষ। আগত ওই নাগরিকদের  ব...

LIVE TV